ধানের সমস্যা ও সমাধান । পর্ব- ০২

ধানের সমস্যা ও সমাধান । পর্ব- ০২

ধানের সমস্যা ও সমাধান: কৃষক ধান আবাদ করার শুরু থেকেই বিভিন্ন সমস্যা শুরু হতে থাকে। ধানের ক্ষেত্রে যে কৃষি সমস্যাগুলো খুব বেশি দেখা যায় তারমধ্যে অন্যতম হচ্ছে, ধানের চারা নষ্ট হয়ে যাওয়া। ধান রোপন করার পর ধানের চারা হলুদ এবং পুড়ে  যাওয়া সমস্যা।  ধানের চারা লাল হয়ে যাওয়া, ধানের পাতা মুচড়ে ও কুকড়ে যাওয়া,  ধানে বিভিন্ন ক্ষতিকর পোকা ও ইদুরের আক্রমণ, ধানের চারার গোড়ার শিকড় পঁচে  যাওয়া, ধান গাছ মারা যাওয়া ইত্যাদি ইত্যাদি সমস্যা। ধানের সকল সমস্যা  ও সমাধান – পর্ব-২ এ আজকে আমরা কৃষকের ধান চাষের নানা সমস্যা ও সমাধান নিয়ে আলোচনা করেছি। আপনাদের সমস্যাবলির সাধারণ প্রশ্নসমূহ এবং তার উত্তর দেওয়া হয়েছে।

যা যা আলোচনা করা হবে

ধানের সমস্যা সমাধানের প্রশ্ন ও উত্তর :

সমস্যা ২১ : ধান গাছের বয়স ২ মাস। গাছের কোনো জোর নাই। করনীয় কি?

সমাধান : কুয়াসাচ্ছন্ন আবহাওয়ায় এরকম মনে হবে। তবে আগাম সতর্কতা হিসাবে টিল্ট-২৫০ ইসি প্রতি ১০ লিটার পানির সাথে ৫ মিলি হারে মিশিয়ে স্প্রে করবেন।

 সমস্যা ২২ : ধানের মধ্যে চাল আসার সময় ধানকে নষ্ট করে পোকা, এর সমাধান কি?

সমাধান : ম্যালাথিয়ন-৫৭ ইসি স্প্রে করতে হবে।

সমস্যা ২৩ : ধানের চারার বয়স ২০ দিন ,ধনের চারা বড় হওয়ার তেমন লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না । কি করলে ধানের চারা বৃদ্ধি পাবে সে সম্পর্কে সঠিক পরামর্শ চাই ।

সমাধান: জমির পানি বের করে বিঘা প্রতি দস্থা সার ১ কেজি ৩৫০ গ্রাম প্রয়োগ করতে হবে।

সমস্যা ২৪ : ধানে পোকার আক্রমণে ধান কালো হয়ে যাচ্ছে। কি করা উচিত?

 সমাধান : ম্যালাথিয়ন-৫৭ ইসি স্প্রে করতে হবে।

সমস্যা ২৪ : ধানের চারা হলুদ হয়ে যাচ্ছে এবং পুড়ে যাচ্ছে । এর সমাধান আছে কি?

 সমাধান : ধানের ধারায় পলিথিনের ছাদ সনধ্যায় এবং পানির রাখতে হবে । রোভলার ওথিয়োভিট পাউডার ১গ্রাম ১ লিঃ স্প্রে করতে হবে ।

সমস্যা ২৫ : ধানের চারা (জালা) লাল হয়ে যায় করনীয় জানাবেন?

 সমাধান : প্রতি শতাংশে ৪০০ গ্রাম হারে জিপসাম প্রয়োগ করতে হবে।

সমস্যা ২৫ : ইরি ধানের ক্ষেতে বিভিন্ন ধরনের ইদুরে আক্রমণ করছে। এই সব ইদুরের হাত থেকে কিভাবে রক্ষা পেতে পারি?

সমাধান : ইঁদুর দমনের জন্য-ধান রোপণের ৪৫-৫০ দিনের মধ্যে ধানের জমি ও আশপাশের এলাকার ইঁদুর দমনের ব্যবস্থা নিতে হবে। যে সমস্ত ফাঁদে ইঁদুর জীবন্ত ধরা পড়ে, এমন ফাঁদ ব্যবহার করে ইঁদুর দমন করুন। ইঁদুর দমনের জন্য তাৎক্ষণিক ক্রিয়াশীল বিষটোপ,যেমন জিংক ফসফাইড অথবা বিলম্বে ক্রিয়াশীল বিষটোপ, যেমন ব্রডিফেকাম বা ব্রমাডিওলন অথবা ফ্লোকোমাফেন দিয়ে ইঁদুর দমন করা হয়। ইঁদুরের গর্তে বিষাক্ত অ্যালুমিনিয়াম ফসফাইড বড়ি দিয়ে গর্তের মুখ ভাল করে বন্ধ করে দিলে ইঁদুর মরা যায়।

সমস্যা ২৬: ধানের পাতা মুচড়ে যাচ্ছে। সমাধান কি?

সমাধান: প্রথমত ইউরিয়া সার একবারে প্রয়োগ না করে ২-৩ বারে প্রয়োগ করতে হবে। তারপর আলোর ফাঁদ ব্যবহার করতে হবে এবং ক্ষেতে ডালপালা পুতে রাখতে হবে।

সমস্যা ২৭ : ধানের পাতা কুকড়ে যাচ্ছে। এখন করনীয় কি?

সমাধান : আলোর ফাদের সাহায্যে মথ দমন। ইউরিয়া একেবারে প্রয়োগ না করে ২-৩ বারে প্রয়োগ করতে হবে।

সমস্যা ২৮ : খুব পরিমাণে মাজরা পোকার আক্রমন দেখা দিয়েছে। সমাধানের জন্য কি করতে হবে?

সমাধান : দ্বিতীয় বার সার দেওয়ার সময় বাসুডিন প্রতি ৩৫ শতাংশে ১ কেজি হারে প্রয়োগ করতে হবে।  যথা সম্ভব কীট নাশক পরিহার করা ভাল।

সমস্যা ২৯ : ধানের পাতা মুড়ে যাচ্ছে সমাধান কি?

সমাধান:  ইউরিয়া সার ২-৩ বারে প্রয়োগ করতে হবে।  আলোর ফাঁদ ব্যবহার ও খেতে ডালপালা পুতে পাখি বসার ব্যবস্থা করতে হবে।

সমস্যা ৩০ : ধান বীজ তলায় বীজ ফেলার পর চারা গাছ সাদা হয়ে যাচ্ছে এবং বাড়তি হচ্ছে না করনীয় কি?

সমাধান : বীজতলায় জিপসাম প্রতি বর্গ মিটারে ১০ গ্রাম হারে প্রয়োগ করুন।

সমস্যা ৩১ : ইরি ধানের চাষ পদ্ধতি বিস্তারিত জানাবেন।

সমাধান : প্রথমে উত্তম রুপে কাদা করে অন্তত সাত দিন পর্যন্ত জমিতে পানি আটকিয়ে রাখতে হবে। শেষ চাষের সময় অনুমোদিত হারে সুষম সার প্রয়োগ করতে হবে। এরপর জমিতে ছিপছিপ পানি থাকা অবস্থায় প্রতি গোছায় ২-৩ টি চারা ২-৩ সে.মি. গভীরতায় গোছা থেকে গোছার দূরত্ব ১৫-২৫ সে.মি. এবং সারি থেকে সারির দূরত্ব ১৫-৩০ সে. মি. দূরত্বে চারা রোপণ করতে হবে। নিয়মিত দেখাশোনা ও ঠিক মতো রোগ বালাই দমন করতে পারলে ইরি ধান চাষে লাভিবান হওয়া যায়।

সমস্যা ৩২: আমার ধানের বীজ তলার চারা ধান বা আমরা যাকে পাতো বলি। এতে নিয়ম মাফিক সার পানি দেওয়া সত্ত্বেও পাতোর বৃদ্ধি হচ্ছে না এবং মারা যাচ্ছে । অনেকেই বলছে শীতের কারণে এই সমস্যা দেখা দিচ্ছে । এর সঠিক প্রতিকার কি?

সমাধান : আপনি আপনার জমির বীজতলায় প্রতি বর্গমিটারে ১০ গ্রাম হারে জিপসাম সার ছিটিয়ে দিবেন। আশা করি ভালো ফল পাবেন।

সমস্যা ৩৩: ব্রি-২৮ ধানের চারার বয়স ১৪-১৫ দিন গোড়া থেকে গাছ মরে যাচ্ছে। এখন করনীয় কি?

সমাধান : ফলিকুর ১০ লিটার পানিতে ৫ মিলি হারে মিশিয়ে স্প্রে করতে হবে।

সমস্যা ৩৪: ধান বীজের চারা গুলো সাদা সাদা হয়ে গেছে।

সমাধান: বীজতলার প্রতি বর্গমিটারে ১০ গ্রাম হারে জিপসাম সার প্রয়োগ করতে হবে।

সমস্যা ৩৫ : ধান বীজ তোলার বয়স ১মাস কিন্তু ধান গাছ বড় হচ্ছে না করনীয় কি?

 সমাধান : জিপসাম বীজতলার প্রতি বর্গ মিটারে ১০ গ্রাম হারে প্রয়োগ করতে হবে।

সমস্যা ৩৬ : ধানের চারার গোড়ার শিকড় পঁচে যাচ্ছে করণীয় কি?

সমাধান : ফলিকুর ১০ লিটার পানিতে ৫ মিলি হারে মিশিয়ে স্প্রে করতে হবে।

সমস্যা ৩৭: কিভাবে জমি তৈরী করলে ভালো হয়?

সমাধান: প্রথমত জমিতে প্রয়োজন মত পানি দিয়ে ২-৩ টি চাস দিতে হবে । দ্বিতীয়ত উচু নিচু থাকলে মই বা কোদাল দিয়ে সমান করে নিতে হবে। তৃতীয়ত, শেষ চাষ ও মই দেওয়ার সময় লক্ষ রাখতে হবে জমিটা যেন সমতল হয়।
শেষ চাষের সময় অনুমোদিত হারে সার প্রয়োগ করতে হবে। ভালোভাবে জমি তৈরি করলে সেচের অপচয় কম হয় , নাইট্রোজেন সারের কার্যকারিতা বেড়ে যায়ও ফসল ভালো হয়।

সমস্যা ৩৮ : ধানের পাতা কুকড়ানো সমস্যা । সমাধান কি?

সমাধান: আলোর ফাদের সাহায্যে মথ দমন।  ইউরিয়া একেবারে প্রয়োগ না করে ২-৩ বারে প্রয়োগ করতে হবে।

সমস্যা ৩৯ : ধানের চারা পুড়ে যাচ্ছে। করনীয় কি?

সমাধান : প্রতি বিঘায় জিপসাম ১ কেজি ৩৫০ গ্রাম হারে প্রয়োগ করতে হবে।

সমস্যা ৪০: ধানের পাতো হলুদ হয়ে যাচ্ছে। কি করলে সমাধান হবে?

সমাধান : জিপসাম প্রতি বিঘায় ১ কেজি ৩৫০ গ্রাম হারে প্রয়োগ করতে হবে।

ধানের সকল সমস্যা  ও সমাধান – পর্ব-২” এই পর্বের প্রশ্ন ও উত্তর তথা সমস্যা ও সমাধানগুলো আশা করি আপনাদের উপকারে লেগেছে। যদি উপকারে লেগে থাকে তাহলে আপনার সোশাল মিডিয়ায় পোস্টটি শেয়ার করে আপনার প্রিয়জনদের পড়ার সুযোগ করে দিন। আপনার কাঙ্খিত সমস্যা ও সমাধানটি খুজে না পেলে ধানের সকল সমস্যা  ও সমাধান – পর্ব-০৩” পড়ুন। অথবা আগামী পর্বগুলো পড়ুন। ধর্য্যসহকারে পড়ার জন্য ধন্যবাদ। আপনার সকল কৃষি সমস্যা ও সমাধান পেতে আমাদের সাইটি নিয়মিত ভিজিট করুন।সবাই ভালো থাকবেন।

আরও পড়ুন:

ধানের সকল সমস্যা ও সমাধান । পর্ব-০১

ভালোবাসার টিপস: ভালোবাসাকে দীর্ঘস্থায়ী করার ২০ টিপস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here